Saturday, November 20, 2021

পরীক্ষার মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা, উচ্চ শব্দে বিপাকে শিক্ষার্থীরা

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি
চতুর্থ ধাপের তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৩ ডিসেম্বর পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার চারটি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু চলমান এসএসসি পরীক্ষার মধ্যে নির্বাচনী বিধি লংঘন করে প্রতিদিন ঢাকঢোল বাজিয়ে উচ্চস্বরে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এতে শব্দ দূষণের কারণে চলমান এসএসসি পরীক্ষার শিক্ষার্থীরা সহ আগামী বার্ষিক পরীক্ষার শিক্ষার্থীরা মারাত্মক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। প্রার্থীদের এমন প্রচারণা বন্ধে স্থানীয় অভিবাবকরা আবেদন জানালেও কেউ সেটা কর্ণপাত করছেন না।

এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, এসএসসি পরীক্ষা চলছে, আগামী মাসের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। এর উপর ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আগামী বুধবার থেকে রয়েছে বার্ষিক পরীক্ষা। এতে শিক্ষার্থীদের উপর ব্যাপক পড়াশোনার চাপ রয়েছে। কিন্তু নির্বাচনের ৩৪ দিন দেরি থাকলেও মেম্বার প্রার্থীদের প্রচারণার চাপে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। প্রায় প্রতিদিনই উপজেলার পার ভাঙ্গুড়া, খানমরিচ, দিলপাশার ও অষ্টমনিষা ইউনিয়নের কোন না কোন ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থীরা ঢাকঢোল পিটিয়ে ব্যান্ডপার্টি দিয়ে মাইকে উচ্চ শব্দে প্রচারণা চালাচ্ছেন। দুপুর থেকে প্রার্থীরা এই প্রচারণা চলতে থাকে। অবশেষে গভীর রাতে রাত্রিকালীন ভোজের মাধ্যমে প্রচারণার অনুষ্ঠান শেষ হয়। এ অবস্থায় মারাত্মক শব্দদূষণে এই দীর্ঘ সময় শিক্ষার্থীরা পড়ার টেবিলে বসে পড়াশোনা করতে মারাত্মক অসুবিধার সম্মুখীন হয়।


এ বিষয়ে মেম্বার প্রার্থীরা বলেন, একজন প্রচারণা চালালে তার দেখে আরেকজন প্রচারণা চালায়। 

কথা বলতে উপজেলা নির্বাচন অফিসার রোকসানা নাসরিনকে ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফয়সাল বিন আহসান বলেন, প্রতীক বরাদ্দের আগে নির্বাচনী প্রচারণা চালানো অবৈধ। তাই অভিযোগ পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে অভিযান চালানো হচ্ছে। এরইমধ্যে এক মেম্বারের প্রচারণার সময় সাউন্ড বক্স সহ সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন