Wednesday, November 17, 2021

ভাঙ্গুড়ার ফারুক হত্যার আসামিদের যাবজ্জীবন জেল

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্র ফারুক হোসেন (১৯) হত্যা মামলায় ১০ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

বুধবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে পাবনার বিশেষ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আহসান তারেক এ রায় ঘোষণা করেন। 



রায় ঘোষণার সময় আদালতে দুই আসামি উপস্থিত ছিলেন। অন্য আসামিরা পালাতক।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ভাঙ্গুড়া পৌরসভাধীন চৌবাড়িয়া এলাকার প্রভাস চন্দ্র দাস (১৮), শাহিন হোসেন (২১), শফিকুল ইসলাম (২১), সাদ্দাম হোসেন (২০), প্রিন্স (২০), ফরিদ আহমেদ (২২), বিলকিস বেগম (৪০), দুলাল হোসেন (২০), ইউসুফ আলী (২২) ও আব্দুল করিম (৪৫)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালের ২৪ আগষ্ট রাত ১১টার দিকে বেড়ানোর কথা বলে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় ফারুককে। এরপর থেকেই তার কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে পরিবার থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ ফারুককে উদ্ধারে অভিযান শুরু করে। এক সপ্তাহ পর ভাঙ্গুড়া পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ওসমান আলীর পুকুরের কচুরিপানার মধ্য থেকে ফারুকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই ঘটনায় ১ সেপ্টেম্বর দুপুরে ১৮/২০ জনের নাম উল্লেখ করে ও আরো কয়েক জনের নাম উল্লেখ না করে ফারুকের মা আনোয়ারা খাতুন থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ ফোনের কললিস্ট ধরে তদন্ত করে আসামিদের গ্রেপ্তার করে। 

আসামিপক্ষের আইনজীবী একেএম শামসুল হুদা ও এসএম ফরিদ উদ্দিন বলেন, আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব। সেখান থেকে তাদের মক্কেলরা নিরপরাধ হিসেবে খালাস পাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তারা।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী দেওয়ান মজনুল হক বলেন, এই মামলায় হত্যা প্রমাণিত হয়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে তাদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। 


শেয়ার করুন