Wednesday, July 14, 2021

ফরিদপুরে অক্সিজেন সেবা দিচ্ছে ছাত্রলীগ সভাপতি মুরাদ

 

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

পাবনার ৯টি উপজেলার মধ্যে করোনা শনাক্তের হার ও সংখ্যা সবচেয়ে কম ছিল ফরিদপুর উপজেলায়। গত ১৫ মাসে এই উপজেলায় মাত্র ৩৫ থেকে ৪০ জন করোনা রোগী ছিল। কিন্তু গত এক মাসেই তা বেড়ে প্রায় ১৪০ জনে পৌঁছেছে। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৭০ জন হাসপাতাল ও বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অধিকাংশ আক্রান্ত ব্যক্তি নানা রকম অসুস্থতায় ভুগছেন। এ অবস্থায় শ্বাসকষ্টের রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা দিতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম মুরাদ 'শেখ হাসিনা' অক্সিজেন সেবা চালু করেছে। 


মঙ্গলবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাদের উপস্থিতিতে দলীয় কার্যালয়ে অক্সিজেন সেবা প্রদান কার্যক্রম শুরু করা হয়। প্রথম দিনে ছাত্রলীগ সভাপতি মুরাদ কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী সঙ্গে নিয়ে করোনা আক্রান্ত শ্বাসকষ্টে ভোগা পৌর শহরের বিনগর বাজারে এক বয়স্ক নারীকে, বিএল বাড়ি ইউনিয়নের দেওভোগ গ্রামের এক ব্যবসায়ীকে এবং পাচুরিয়া বাড়ি গ্রামের এক দরিদ্র ব্যক্তিকে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেন। এসময় তারা ওইসব এলাকার মানুষকে মোবাইল নাম্বার দিয়ে কারো করোনা আক্রান্ত হয়ে শ্বাসকষ্ট হলে উপজেলা ছাত্রলীগের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য প্রচারণা চালান।


ছাত্রলীগ সভাপতি মুরাদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে ফরিদপুর বাজারের ব্যবসায়ী মনসুর আলী বলেন, করোনা পরিস্থিতি খারাপ হয়ে যাওয়ায় সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ মহা দুশ্চিন্তায় আছে। বিশেষ করে আক্রান্ত ব্যক্তিদের পরিবারের লোকজন বেশি অসহায় বোধ করছেন। এ অবস্থায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের পাশে দাঁড়িয়ে ছাত্রলীগ মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন। আমরা চাই এভাবে সবাই সবার পাশে দাঁড়িয়ে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করি।



উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম মুরাদ বলেন, ফরিদপুর উপজেলা করোনা আক্রান্তের সংখ্যা খুব কম ছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই মারাত্মক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এতে সংশ্লিষ্ট সকলেই হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে। তাই মানুষের দুঃসময়ে ছাত্রলীগের একজন সদস্য হিসেবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো কর্তব্য মনে করছি। এই মহামারী মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে ছাত্রলীগ সর্বদা মাঠে থাকবে।


শেয়ার করুন