Tuesday, June 29, 2021

ভাঙ্গুড়ায় দ্রুতগতিতে ছড়াচ্ছে করোনা, সংক্রমণ রোধে মেয়রের উদ্যোগ

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি
গত দুই সপ্তাহ ধরে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় বেড়েই চলছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। একই সাথে বাড়ছে শনাক্তের হার। সর্বশেষ আজ সোমবার ২০টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। জ্বর ও মাথা ব্যাথা সহ নানা ধরনের অসুস্থতায় ভুগছেন আক্রান্তরা। অনেকের শ্বাসকষ্টের কারণে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে নিতে হচ্ছে অক্সিজেন সাপোর্ট। হাসপাতালের চিকিৎসক সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রতিনিয়ত সেবা দিয়ে যাচ্ছেন এসব আক্রান্ত ব্যক্তিদের। প্রতিদিনই করোনা শনাক্তের হার বেড়ে চলেছে। এছাড়া শনাক্তের বাইরেও অসংখ্য মানুষ জ্বর, সর্দি-কাশি ও মাথা ব্যাথা সহ নানা উপসর্গ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে প্রতিদিন চিকিৎসা নিতে আসছেন। এ অবস্থায় জনগণকে সচেতন করতে উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনের আপডেট জানাতে পৌর শহরের বকুলতলা চত্বরে সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ মাসে এই উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল প্রায় ৭০ জন। কিন্তু গত দুই সপ্তাহে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৫ জনে। এদের মধ্যে ৬৬ জনের শরীরে জ্বর ও মাথা ব্যাথা সহ নানা উপসর্গ রয়েছে। অনেকের শ্বাসকষ্ট হাওয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এখন প্রতিদিনই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গড়ে পাঁচ থেকে সাত জন করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি থাকছেন। তবে শয্যা সংখ্যা সীমিত থাকায় চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতেই কোয়ারেন্টিন থাকছেন বেশিরভাগ করোনা রোগী। এ অবস্থায় আক্রান্তদের চাপে হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ সহ চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। হাসপাতালের এমওডিসি ডাক্তার নাজমুস সাকিব, আব্দুল হান্নান ও আশরাফুল ইসলামসহ কয়েকজন চিকিৎসক ক্লান্তিহীন ভাবে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিচ্ছেন।


এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উদ্যোগে ও পৌর কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় প্রতিদিনই শহরের ভাঙ্গুড়া ও শরৎনগর বাজারে এন্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এতে প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। অ্যান্টিজেন টেস্টের পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার এখন ৫০ শতাংশের উপরে। তাই জনগণকে মাস্ক ব্যবহার সহ স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতন করতে ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেলের উদ্যোগে উপজেলা চেয়ারম্যান বাকি বিল্লাহ,  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান ও থানা প্রশাসনের কর্মকর্তারা প্রতিনিয়ত জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এর অংশ হিসেবে রবিবার রাতে ভাঙ্গুড়া বাজারের বকুলতলায় প্রতিদিনের করোনা আপডেট বোর্ড টাঙ্গানো হয়। 

ভাঙ্গুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ বদরুল আলম বলেন, হঠাৎ করেই ভাঙ্গুড়ায় ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। তাই সংক্রমণ রোধে পৌরমেয়র বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছেন। এর অংশ হিসেবে উপজেলার করোনা আক্রান্তের আপডেট জনগণকে জানিয়ে সচেতন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এটা নিঃসন্দেহে একটা ভাল উদ্যোগ।

পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল বলেন, যেকোনো মূল্যে জনগণকে মাস্ক ব্যবহার করা সহ স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। তবেই করোনা প্রতিরোধ সম্ভব হবে বলে মনে করি। তাই প্রতিনিয়ত মাঠে নেমে জনগণকে ভালো রাখতে কাজ করে যাচ্ছি।


শেয়ার করুন