Thursday, May 13, 2021

ভাঙ্গুড়ায় ক্রেতা সেজে মাদক ব্যবসায়ীকে ধরল পুলিশ



ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

পুলিশের ফাঁদে ইয়াবা সহ আটকের পর পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় পালিয়ে যায় রইস উদ্দিন নামে এক মাদক ব্যবসায়ী। এরপর পুলিশ চার ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযানে এক নিকটাত্মীয়ের বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। রইস উদ্দিনের বাড়ি পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের শাহনগর গ্রামে। সে ওই গ্রামের লইম উদ্দিনের ছেলে। বুধবার দুপুরে নিজ বাড়ি থেকে রইস ৪১ পিস ইয়াবাসহ থানা পুলিশের হাতে আটক হয়।


জানা যায়, রইস উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ইয়াবা সহ বিভিন্ন মাদক দ্রব্য বিক্রি করে আসছেন। বুধবার ওই মাদক ব্যবসায়ীকে ধরতে পুলিশের এক সদস্য ক্রেতা সেজে ইয়াবা কিনতে যায়। একপর্যায়ে রইসের কাছ থেকে ইয়াবা কেনার সময় ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কামরুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শাহনগর গ্রামে রইস উদ্দিনের বাড়িতে অভিযান চালায়। অভিযানে রইসের কাছ থেকে ৪১ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে বলে জানায় পুলিশ। এ সময় রইসকে আটক করলে বাড়ির অন্য সদস্যরা পুলিশের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এতে পরিবারের সদস্যদের নিয়ন্ত্রণ করতে হিমশিম খায় পুলিশ। এমনকি রইস হ্যান্ডকাফ পরা অবস্থায় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু করে। একপর্যায়ে সুযোগ বুঝে রইস দৌড়ে বাড়ির পাশের ঘাসের জমির মধ্যে দিয়ে পার্শ্ববর্তী চাটমোহর উপজেলার সেন গ্রামে পালিয়ে যায়।


এরপর বিষয়টি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। তখন চাটমোহর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সজীব শাহরিন, ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ও চাটমোহর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম সহ পুলিশ সদস্যরা ৪ ঘন্টা রুদ্ধশ্বাস অভিযান চালিয়ে এদিন বিকালে চাটমোহর উপজেলার সেন গ্রামের এক নিকটাত্মীয়ের বাড়ি থেকে রইসকে আটক করতে সক্ষম হয়। রাতেই রইস উদ্দিনের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়


অভিযান পরিচালনাকারী ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রইস কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী। তাকে ধরতে অনেক কৌশল অবলম্বন করে পুলিশ সফল হয়েছে। রাতেই রইসের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে পাবনা জেলা হাজতে পাঠানো হবে।


শেয়ার করুন