Friday, November 27, 2020

ভাঙ্গুড়ায় মাস্ক ব্যবহারে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে পৌর মেয়রের উদ্যোগে মানববন্ধন

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস সংক্রমন আবারো মহামারি আকার ধারণ করেছে। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত মৃতের সংখ্যা। বৈশ্বিক তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় এই সংক্রমণের হার বাড়ছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বাংলাদেশেও সম্প্রতি বাড়তে শুরু করেছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা। এরই মধ্যে দেশের স্বাস্থ্য দপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন করোনার এই দ্বিতীয় পর্যায়ের ঢেউ মোকাবেলায় নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। তবে জনসচেতনতা বৃদ্ধি না পাওয়ায় এসব উদ্যোগ কাজে আসছে না। তাই পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভায় জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আজ শুক্রবার সকাল ১১ টায় ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়রের উদ্যোগে এবং মানববন্ধন আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে ভাঙ্গুড়া বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ সহ সকল ব্যবসায়ী অংশগ্রহণ করেন। এতে মাস্ক ছাড়া ক্রেতাদের কাছে পণ্য বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় বাজারের সকল ব্যবসায়ী।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শুরু থেকেই সংক্রমণ রোধে ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র নানামুখী উদ্যোগ নেন। হাত ধোয়ার জন্য সাবান পানির ব্যবস্থা করা হয়। শহরের বিভিন্ন সড়কে প্রতিনিয়ত জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়। শহরের প্রবেশ পথগুলোতে বসানো হয় জীবানুনাশক ট্যানেল। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে পৌর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের নিয়ে মহল্লায় মহল্লায় প্রচারণা চালান পৌর মেয়র। এতে সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় ভাঙ্গুড়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দেশের যে কোনো এলাকার চেয়ে তুলনামূলক কম। কিন্তু করোনা ভাইরাস এর দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমনের আশঙ্কা বাড়লেও সম্প্রতি মানুষের মধ্যে সচেতনতা দেখা যাচ্ছে না। এরইমধ্যে পৌরমেয়র শহরে আগত ক্রেতাদের মাস্ক ব্যবহারের জন্য বণিক সমিতির হাতে প্রায় ৩০ হাজার মাস্ক তুলে দেন। কিন্তু কেউ মাস্ক মুখে না রেখে পকেটে রেখে দিচ্ছেন অথবা কেউ থুতনিতে ঝুলিয়ে রাখছেন। তাই জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেলের উদ্যোগে এবং উপজেলা শিল্প বণিক সমিতির সহযোগিতায় মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।



শেয়ার করুন