Tuesday, September 22, 2020

ভাঙ্গুড়ায় কিশোরকে গামছা দিয়ে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় আবু হানিফ রাসেল (১২) নামে এক কিশোরকে গামছা দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জমি থেকে আখ ভেঙে খাওয়ায় জমির মালিক ওই কিশোরকে নির্যাতন করে বলে অভিযোগ। উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের হরিহরপুর গ্রামে মঙ্গলবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের সদস্যরা অসুস্থ রাসেলকে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ঘটনায় থানায় ওই কিশোরের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে জমির মালিক নুর বক্স পলাতক থাকলেও তার ভাই মোহাম্মদ উম্বরকে আটক করেছে পুলিশ। রাসেল অষ্টমনিষা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আবু হানিফ রাসেল মঙ্গলবার দুপুরে হরিহরপুর গ্রামের মাঠে নুর বক্সের জমি থেকে আখ ভেঙ্গে খাচ্ছিল। এমন সময় জমির মালিক নুর বক্স রাসেলের কাছে থাকা গামছা কেড়ে নিয়ে হাত বেঁধে মাটির উপর ফেলে গাছের ডাল দিয়ে বেদম প্রহার করে। একপর্যায়ে নুর বক্স পেটাতে পেটাতে রাসেলকে জমি থেকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নিয়ে আসে। এসময় রাসেলের মা রাশেদা খাতুন এসে ছেলেকে রক্ষা করতে চাইলে নুর বক্স তার মাকেও মারধর করেন। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা এসে বাধা দিলে নুর বক্স তখন রাসেলকে ছেড়ে দেয়। তবে সেসময় রাসেল গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা তাকে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। পরে ঘটনায় রাসেলের চাচা মোহাম্মদ শরৎ থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হরিহরপুর গ্রামে  অষ্টমনীষা বাজারে অভিযুক্ত নুর বক্সকে ধরতে অভিযান চালান। কিন্তু নুর বক্স দুপুর থেকে পলাতক থাকায় রাতে নিজ বাড়ি থেকে তার ভাই মোহাম্মদ উম্বরকে আটক করে পুলিশ।

ভাঙ্গুড়া থানার এসআই শরিফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, জমির আখ খাওয়াকে কেন্দ্র করে এক কিশোরকে শারীরিক নির্যাতন করেছে জমির মালিক। পরে নির্যাতিত কিশোরের পরিবার অভিযোগ করলে ওসি স্যার অভিযুক্তকে ধরতে নিজেই অভিযান পরিচালনা করেন। তবে অভিযুক্ত নুর বক্স পলাতক থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তাই তার ভাইকে আটক করা হয়েছে।


শেয়ার করুন