Friday, June 5, 2020

পাবনায় বাড়ির ভেতর বাবা-মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা

(অনলাইন ডেস্ক)
পাবনায় একটি বাড়ি থেকে বাবা-মা ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পৌর সদরের দিলালপুর মহল্লায় দ্বিতল বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষে রক্তাক্ত অবস্থায় লাশ তিনটি পড়ে ছিল। শুক্রবার (০৫ জুন) দুপুরে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
নিহতরা হলেন, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের (রাকাব) অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার (৬০) তার স্ত্রী ছুম্মা খাতুন (৫০) ও মেয়ে সানজিদা খাতুন (১৪)। সানজিদা পাবনার একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। পুলিশের ধারণা, দুই থেকে তিন দিন আগে তাদের হত্যা করা হয়েছে। ডাকাত দল বাড়ির মালামাল লুটের জন্য এ হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারে। 
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এই বাড়ি থেকে পচাগন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ওই বাড়িতে গিয়ে জানালা দিয়ে ভেতরে উঁকি দিয়ে ভেতরে মরদেহ দেখতে পায়। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বাড়ির মূল ফটকের তালা ভেঙে পুলিশের পাবনা ক্রাইম ব্রাঞ্চের সদস্যরা বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করেছে। দোতলা বিশ্লিষ্ট বাড়িতে ওই কৃষি কর্মকর্তা বছর তিনেক হলো ভাড়া রয়েছেন বলে জানা গেছে। ওই বাড়িতে আর কোনো ভাড়াটিয়া নেই। বাড়ির মূল মালিক দেশের বাইরে থাকেন। এ ঘটনায় স্থানীয় সাধারণ মানুষদের মধ্যে বেশ আতঙ্ক বিরাজ করছে।
পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহম্মেদ বলেন, নিহত তিনজনের শরীরেই ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। মরদেহগুলো প্রায় অর্ধগলিত। দুই থেকে তিন দিন আগে তাদের হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ডাকাতেরা তাদের কুপিয়ে হত্যার পর বাড়ির মালামাল লুট করেছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন