Monday, June 1, 2020

ভাঙ্গুড়ায় পাঁকা ধানের ক্ষেত প্লাবিত, জমির ধান নিয়ে বিপাকে কৃষক

(অনলাইন ডেস্ক)
পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার নিম্ন এলাকায় বন্যার পানি ঢুকে অনেক বোরো ক্ষেত প্লাবিত হয়েছে। ফলে জমির পাকা ধান নিয়ে কৃষকরা বিপাকে পড়েছেন। এসব এলাকার কৃষকরা জানান,দু’দিনের মধ্যে কিছু মাঠের ধান কাটতে না পারলে পানির নিচে তলিয়ে যাবার আশংকা রয়েছে। এদিকে ধান কাটা শ্রমিকের সংকট দেখা দেওয়ায় পাকা ধান দ্রুত কাটাও সম্ভব হচ্ছে না।
উপজেলার বেতুয়ান গ্রামের কৃষক জয়নাল সরকার এবং বিএলবাড়ি গ্রামের মোকলেছুর রহমান জানান,পাশ্ববর্তী ফরিদপুর থানার দেওভোগ দিয়ে গুমানি নদীর পানি প্রবেশ করায় এক দিনের মধ্যে এখানকার বোরো ক্ষেতে হাঁটু পানি জমি গেছে।

ভবানিপুর গ্রামের নুরুল ইসলাম বরাত ও শাহজাহান আলী জানান,তাদের চার বিঘা জমির ধান পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় কাটতে পর্যন্ত পারেননি। এখানে প্রতি বিঘা জমির ধান কাটতে চার হাজার টাকা দিয়েও লেবার পাওয়া যাচ্ছে না।
চক লক্ষিকোল গ্রামের শাহজাহান সরকার ও মাগুড়া গ্রামের সামাদ সরদার জানান, রোববার আমাদের মাঠের কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে।
খানমরিচ এলাকার কৃষক মো: শাহাদত আলী ও শরীফ খান জানান,নিমাইচড়া দিয়ে বন্যার পানি এসে ইতোমধ্যে পাকার বিল ডুবে গেছে। কৃষকরা শুধু ধানের ছড়াটুকু কেটে নিতে প্রাণপনে চেষ্টা করছেন।
উপজেলা কৃষি অফিসার এনামুল হক বলেন,সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পুঁইবিল বাঁধের ক্ষতিগ্রস্থ অংশ মেরামত করতে স্বক্ষম হলেও ফরিদপুর ও চাটমোহর উপজেলার বিভিন্ন স্থান দিয়ে এলাকার ফসলি জমিতে বন্যার পানি ঢুকছে আমরা প্রতিরোধ করতে পারছিনা। তবে কৃষকদের বন্যা পীড়িত এলাকায় জমির ধান ষাট ভাগ পাকলেই কেটে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন